November 16, 2016

থাই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সিভাসুর সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা এক মাসের প্রশিক্ষণ গ্রহণের সুযোগ পাবেন

dsc_8190

“থাই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সিভাসুর সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর

শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা এক মাসের প্রশিক্ষণ গ্রহণের সুযোগ পাবেন”

 

থাইল্যান্ডের Khon Kaen University এর সাথে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা বিনিময়ের লক্ষ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হয়েছে। ১৫ নভেম্বর ২০১৬ বিকাল ৪টায় বিশ্বদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত শিক্ষকদের মতবিনিময় সভায় উভয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঝে এ চুক্তি সম্পাদিত হয়।উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ এর উপস্থিতিতে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন সিভাসু ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. আহসানুল হক ও Khon Kaen University এর ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন Assoc. Prof. Dr. Chuchat Kamollerd ।    

চুক্তি অনুযায়ী এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা প্রতি বছর এক মাস থাইল্যান্ডের উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণের সুযোগ পাবেন। এছাড়াও উভয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে গবেষণা উপকরণ, প্রকাশনা ও তথ্য বিনিময় এবং যৌথ গবেষণা কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নুরুল আবছার খান, ফুড সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. খন্দকার নুরুল ইসলাম, গবেষণা পরিচালক প্রফেসর ড. মো. কবিরুল ইসলাম খান, বহিরাঙ্গণ কার্যক্রম পরিচালক প্রফেসর ড. একেএম সাইফুদ্দীন, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলমগীর হোসেনসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ। থাই প্রতিনিধিদলে উপস্থিত Asst. Prof. Dr. Kochakorn Direksin, Asst. Prof. Dr. Chaiwat Jarassaeng ও Asst. Prof. Dr. Sarinya Rerkyusuke।

এর আগে মঙ্গলবার থাই প্রতিনিধিদলের সদস্যরা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক সুযোগ-সুবিধা ও গবেষণা কর্ম পরিদর্শন করেছেন। সিভাসুর উন্নতমানের ল্যাবরেটরি ও গবেষণা কর্ম দেখে সফরকারী দলের প্রতিনিধিরা সন্তোষ প্রকাশ করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ বলেন, থাইল্যান্ডের Khon Kaen University এর সাথে ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা বিনিময়ের ল্যক্ষ্য সম্পাদিত সমঝোতা চুক্তি বাস্তবায়িত হলে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা উপকৃত হবে। যৌথ গবেষণা কার্যক্রম, গবেষণা উপকরণ ও প্রযুক্তি বিনিময় এবং এ সংক্রান্ত তথ্য আদান-প্রদানের মাধ্যমে উভয় প্রতিষ্ঠান লাভবান হবে।

উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই কারিগরি বিষয়সমূহে যুগোপযোগী শিক্ষা প্রদান এবং হাতে-কলমে ব্যবহারিক কাজের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন দক্ষ গ্র্যাজুয়েট তৈরির লক্ষ্যে এ বিশ্ববিদ্যালয় (তৎকালীন চট্টগ্রাম সরকারি ভেটেরিনারি কলেজ) বাংলাদেশে সর্বপ্রথম প্রাণি চিকিৎসা বিষয়ে এক বছর মেয়াদী ইন্টার্নশীপ কর্মসূচী চালু করে। প্রতিষ্ঠানের প্রথম ব্যাচ থেকে অদ্যাবধি ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের সকল শিক্ষার্থী ভারতের তামিলানাডু ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদ্রাজ ভেটেরিনারি কলেজে দ্বি-পক্ষীয় চুক্তির মাধ্যমে এক মাসের জন্য ইন্টার্ণশীপের সুযোগ পাচ্ছে। এছাড়াও ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের বাছাইকৃত ছাত্রছাত্রীরা যুক্তরাষ্ট্রের টাফট ইউনিভার্সিটিতে এক মাসের ইন্টার্ণশীপের সুযো্গ পাচ্ছে।

আরও উল্লেখ্য, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ অনুষদের ১ম ব্যাচের সকল শিক্ষার্থী (৩৫ জন) এক মাসের ইন্টার্ণশীপ করার জন্য বর্তমানে মালয়েশিয়ার “ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া তেরেঙ্গানো”তে অবস্থান করছে। শিক্ষা ও গবেষণা বিনিময়ের লক্ষ্যে গত ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে স্বাক্ষরিত সমঝোতা চুক্তি (এমওইউ) অনুযায়ী ফিশারিজ অনুষদ ও ফুড সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি অনুষদের সকল শিক্ষার্থী এক মাস বিনা খরচে যেখানে ইন্টার্ণশীপ করার সুযোগ পাবে। মালয়েশিয়ায় ইন্টার্ণশীপে থাকাকালীন ছাত্রছাত্রীরা অভ্যন্তরীণ যাতায়াত ব্যবস্থা, বিশ্ববিদ্যালয়ের থাকার ব্যবস্থা, শিক্ষা গ্রহণ, শিক্ষা সফরসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাবে।